COMILLA VICTORIANS BLOG

কুমিল্লার খেলা দিয়ে শুরু হবে এবারের বিপিএল

আগামী মাসের ৪ নভেম্বর মাঠে গড়াবে বিপিএল টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টের চতুর্থ আসরের খেলা। দেশের একমাত্র টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট বিপিএল আয়োজনে সব প্রস্তুতি প্রায় সেরে ফেলেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। খেলার সূচিও চূড়ান্ত হয়ে গেছে। বাকি শুধু আনুষ্ঠানিক ঘোষণা।
আগামী ৪ নভেম্বর মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স ও রাজশাহী কিংসের ম্যাচ দিয়ে পর্দা উঠবে টুর্নামেন্টের। একই দিন সন্ধ্যার ম্যাচে খেলবে রংপুর রাইডার্সের ও খুলনা টাইটানস।
প্রতিদিন দুইটি করে ম্যাচ হবে। প্রথম রাউন্ডের ১৬টি ম্যাচ হবে ঢাকার মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে। ম্যাচগুলো হবে ৪ থেকে ১৩ নভেম্বর। এরপর চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে হবে ১০টি ম্যাচ। দুটি করে চট্টগ্রামে খেলা হবে পাঁচ দিন।১৭ নভেম্বর শুরু হয়ে ২৫ নভেম্বর পর্যন্ত চলবে চট্টগ্রাম পর্বের খেলা।
চট্টগ্রামের ক্রিকেট কর্মকর্তারা চান ভেন্যূ পরিবর্তন করতে। জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়াম থেকে ম্যাচগুলো তারা নিয়ে আসতে চান এমএ আজিজ স্টেডিয়ামে। কারণ এমএ আজিজে খেলা হলে দর্শক সমাগম হবে বেশি। এমএ আজিজ স্টেডিয়াম শহরের কেন্দ্রে হওয়ায় দর্শকদের যাতায়াতেও সুবিধা হবে। কিন্তু এই ভেন্যূর বড় সমস্যা, মাঠ খেলার উপযোগী করে তুলতে লম্বা সময় ধরে নিবিড় পরিচর্যার দরকার হবে।
এবারের বিপিএলে সাত দলের মধ্যে মোট ৪৬টি ম্যাচ হবে। ডাবল লিগের খেলা ৪২টি ম্যাচ। অ্যালিমিনেটর এবং দুটি কোয়ালিফায়ার এবং ফাইনালসহ আছে আরো চারটি ম্যাচ। লিগ টেবিলের প্রথম দুই দল সরাসরি প্রথম কোয়ালিফায়ার ম্যাচে অংশ নিবে। জয়ী দল চলে যাবে ফাইনালে। পরাজিত দল খেলবে দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ার। তৃতীয় ও চতুর্থ স্থানের দল দুটি খেলবে অ্যালিমিনেটর ম্যাচ। এই ম্যাচের জয়ী দল খেলবে প্রথম কোয়ালিফায়ারে পরাজিত দলের সঙ্গে। এই ম্যাচের জয়ী দল খেলবে ফাইনালে।
ডিসেম্বর মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে দুপুর আড়াইটায় হবে অ্যালিমিনেটর ম্যাচ। একই দিন  প্রথম কোয়ালিফায়ার ম্যাচ সন্ধ্যা সাতটায়। পরদিন সন্ধ্যা সাতটায় মাঠে গড়াবে দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ার ম্যাচ। একদিন বিরতি দিয়ে ৯ ডিসেম্বর হবে ফাইনাল। এবার ফাইনালের জন্য রিজার্ভ ডেও রাখা হয়েছে। কোনো কারণে ৯ নভেম্বর খেলা না হলে পরদিন ফাইনাল ম্যাচ নতুন করে হবে।<span বারের টুর্নামেন্টে খেলার মাঝে বিরতি দেয়া হয়েছে বেশি। ৩৭ দিনের টুর্নামেন্টে ১২ দিনের বিরতি রাখা হয়েছে। এতে খেলোয়াড়দের ওপর চাপ কম পড়বে। মাঠ পরিচর্যারও সুযোগ থাকবে। দিনের ম্যাচটি শুরু হবে দুপুর আড়াইটা থেকে। রাতের ম্যাচ সন্ধ্যা সাতটা থেকে। টুর্নামেন্টের সব খেলা দেখাবে স্যাটেলাইট টিভি চ্যানেল নাইন